মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা করেছে বাংলাদেশ

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘মাত্র ১০ দিনের মধ্যে দুই হাজার চিকিৎসক ও পাঁচ হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। চিকিৎসা খাতকে আরও শক্তিশালী করতে খুব দ্রুতই মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা সফল করে নিয়োগ দেওয়া হবে।তার ব্যক্তব্য নিম্নে বিস্তারিত আলোচনা করা হল,

মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা

 

করোনাভাইরাস নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা পরিচালনার জন্য সরকার ৫০ হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা করেছে  স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক রবিবার বলেছেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক ঢাকার বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে করোনাভাইরাসের জন্য ২ হাজার শয্যা বিশিষ্ট অস্থায়ী হাসপাতালের উদ্বোধনকালে এ ঘোষণা দেন তিনি।তিনি বলেছিলেন যে তারা খুব শিগগিরই তাদের নিয়োগ দেবে। করোন ভাইরাস মহামারীটি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা একটি দেশের নিয়ন্ত্রণের কৌশল গঠনে এই রোগের জন্য পর্যাপ্ত পরীক্ষার গুরুত্বের উপর দ্রুত জোর দিয়েছিলেন।বাংলাদেশ জুড়ে বিভিন্ন আরটি-পিসিআর ল্যাবগুলিতে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষার জন্য প্রযুক্তিবিদদের প্রয়োজন।
সরকার এখন আরও সম্প্রসারণের পরিকল্পনা নিয়ে ৪২ টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা করছে। করুণাভাইরাস রোগীদের পরিচালনা করার জন্য বসুন্ধরা গ্রুপ সরকারকে স্থান দানের পরে অস্থায়ী হাসপাতালটি স্থাপন করা হয়েছিল।মন্ত্রী বলেন, নন-সিভিআইডি হাসপাতালে সাধারণ রোগীদের বাধ্যতামূলক চিকিত্সার জন্য সব সরকারি ও বেসরকারী হাসপাতালে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। তিনি জনগণকে অনুরোধ করেছেন যে কোনও কোভিড-19 উপসর্গ থাকলে কোনও তথ্য গোপন না করতে।

হাসপাতালটি যাতে ঠিকভাবে পরিচালিত হয়, রোগীরা যাতে কাঙ্ক্ষিত সেবা পায় এজন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানাই।’

জাহিদ মালেক বলেন, ‘মাত্র ২০ দিনের মধ্যে এই হাসপাতালটি সরকার প্রস্তুত করতে পেরেছে।এটি বিশ্বের দ্বিতীয় বড় কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল। এখানে অত্যাধুনিক মোট দুই হাজার ১৩ টি আইসোলেটেড শয্যা রয়েছে। যার মধ্যে ৭১ টির সাথে অক্সিজেন সিলিন্ডার যুক্ত করা হয়েছে। আরো চারশটি পোর্টেবল অক্সিজেন সিলিন্ডার আছে। আইসিইউ ব্যবস্থাও আছে। সবমিলে এটি কোনো অংশে পিছিয়ে নেই।’” তিনি বলেছিলেন যে করোনভাইরাস রোগীদের শ্বাসকষ্টের মুখোমুখি হতে হয় যার জন্য জরুরি অক্সিজেন থেরাপির প্রয়োজন হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, এটি করোনভাইরাস চিকিত্সার জন্য নিবেদিত বিশ্বের “দ্বিতীয় বৃহত্তম হাসপাতাল”।
“আমরা কেবল ২০ দিনের মধ্যে এটি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছি,” তিনি বলেছিলেন।

সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘হাসপাতালে জনবল পর্যায়ক্রমে নিয়োগ করা হচ্ছে। প্রথমে ৫০০ রোগীর চিকিৎসার জন্য জনবল নিয়োগ করা হয়েছে। রোগীর ওপর ভিত্তি করে পরে আরও ৫০০ রোগীর জন্য জনবল নিয়োগ করা হবে। এভাবে ধাপে ধাপে বাকি শয্যাগুলোর জন্য জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে।’

এসময় তিনি করোনা হাসপাতালে সাংবাদিকদের জন্য দুশোটি শয্যা বরাদ্দ রাখার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান।

 বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই যে, উনি আমাদের হাসপাতাল তৈরির প্রস্তাবটি গ্রহণ করেছেন। আমরা যতটুকু সম্ভব ততটুকু করেছি, এখন

তিনি বলেছিলেন যে তারা ইতিমধ্যে সমস্ত সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতালগুলিকে নন-কোভিড হাসপাতালে সাধারণ রোগীদের বাধ্যতামূলক চিকিত্সার জন্য নির্দেশনা দিয়েছিল।

তিনি তবে জনগণকে স্বাস্থ্য বিধি সঠিকভাবে অনুসরণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।
“সরকার যখন প্রয়োজন তখন লকডাউন চাপিয়েছিল এবং যখন শিথিল হওয়ার সময় হয় তখন তা শিথিল করে। সমস্ত সুরক্ষা বিধি অনুসরণ করে আমরা এটিকে শিথিল করেছি। সরকার সব দিক বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। তবে জনগণকে এই নিয়মগুলি অনুসরণ করা দরকার, “তিনি বলেছিলেন।


মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ  , মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা করেছে বাংলাদেশ  ,৫ হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেবে সরকার ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেবে সরকার ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেবে ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট কি ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ,নিয়োগ দেয়া হবে পাঁচ হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ,নতুন ৫ হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেয়া হবে ,মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেয়া হবে ,মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের দ্রুত নিয়োগের দাবি ,

7 thoughts on “মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ এর পরিকল্পনা করেছে বাংলাদেশ”

  1. নিয়গ দিবে কবে সেই বেপারে কী এখনো কিছু বলেছেন? আর নিয়গটা কী সরকারী ভাবে হবে নাকী বেসরকারি

    Reply

Leave a Comment