বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ

বাংলাদেশের পারমাণবিক কৌশল কাজে লাগিয়ে কৃষিখাতে অবদান রাখার একমাত্র প্রতিষ্ঠান হল বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট। কৃষিতে পারমাণবিক কৌশলের শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের মাধ্যমে নতুন অধিক উৎপাদনশীল ফসলের জাত উদ্ভাবন, ভূমি ও পানির উত্তম ব্যবস্থাপনা, ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য নতুন কলাকৌশল উদ্ভাবন এবং ফসলের রোগ ও পোকামাকড় ব্যবস্থাপনা হচ্ছে এই প্রতিষ্ঠানের গবেষণার মূল বিষয়।

প্রতিষ্ঠানটি ময়মনসিংহ শহরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থিত। এতে প্রায় ৮০জন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা দায়িত্বরত আছেন। বাংলাদেশের রংপুর, ঈশ্বরদি, মাগুরা, সাতক্ষীরা, কুমিল্লা, জামালপুর, খাগড়াছড়ি, সুনামগঞ্জ, শেরপুর, বরিশাল, গোপালগঞ্জ, নোয়াখালীও চাঁপাইনবাবগঞ্জে এটির ১৩টি উপকেন্দ্র রয়েছে। সাম্প্রতিক  বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।আগ্রহি প্রার্থি দ্রুত আবেদন করার জন্য আহবান করা হল। সকল বিস্তারিত নিম্নে প্রদান করা হলঃ-

আবেদনের মাধ্যমঃ অনলাইন এর মাধ্যমে ।

আবেদনের সময় সীমাঃ ৩১ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ

বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ

 

Source: Jugantor, 30 December 2021

Application Deadline: 31 January 2021

 

Visit Website: www.bina.gov.bd

Apply Online: bina.teletalk.com.bd

 

১৯৬১সালে ঢাকায় পারমাণবিক শক্তি কমিশনের অধীনে একটি প্রথম রেডিও-ট্রেসার ল্যাবরেটরিতে (রাগেন) শুরু হয়েছিল, “ইনস্টিটিউট অব পারমাণবিক কৃষি (আইএনএ)” নামে একটি কেন্দ্র ১৯৭২ সালের জুলাইয়ে বিএইসি-র অধীনে আরও একটি সংগঠিত গোষ্ঠী প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। বাংলাদেশ পারমাণবিক শক্তি কমিশন) এবং ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহের ক্যাম্পাসে স্থানান্তরিত হয়।

১৯৮২ সালে আইএনএকে বিআরআই এবং বিআরআরআই-এর মতো “একটি স্বাধীন জাতীয় কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা” দেওয়া হয় এবং প্রশাসনিক অধীনে রাখা হয় কৃষি মন্ত্রকের নিয়ন্ত্রণ। ১৯৮৪ সালে, এটি একটি জাতীয় ইনস্টিটিউট হিসাবে ঘোষিত হয় এবং ১৯৮৪ সালের দ্বিতীয় অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে বাংলাদেশ পারমাণবিক কৃষি ইনস্টিটিউট (বিআইএনএ) নামকরণ করা হয়। বিনা অধ্যাদেশ ১৯৯৬সালের আইনের নং আইভির অধীনে বাংলাদেশ সংসদ কর্তৃক সংশোধন ও আইন প্রয়োগ করা হয়।এটি ১১ টি পূর্ণ-গবেষণা গবেষণা বিভাগ পেয়েছে যেমন।

উদ্ভিদ প্রজনন, মাটি বিজ্ঞান, শস্য ফিজিওলজি, এনটমোলজি, প্ল্যান্ট প্যাথলজি, অ্যাগ্রোনমি, কৃষি প্রকৌশল, প্রশিক্ষণ, যোগাযোগ ও প্রকাশনা, জৈব প্রযুক্তি, উদ্যানতত্ত্ব এবং কৃষি অর্থনীতি। বর্তমানে বিনা দেশের ১৩ টি সাবস্টেশন পেয়েছে রংপুর, Ishশ্বরদী, মাগুরা, সাতক্ষীরা, কুমিল্লা, জামালপুর, খাগড়াছড়ি, সুনামগঞ্জ, শেরপুর, বরিশাল, গোপালগঞ্জ, নোয়াখালী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ। বিএনএ বাংলাদেশের বিভিন্ন মাটির নমুনা সংগ্রহ করে একটি সমৃদ্ধ মাটি জাদুঘরও তৈরি করেছে।

 


বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ,বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে নিয়োগ ,বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ ,বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ,
বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ময়মনসিংহ ,পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ ,পরমাণু কৃষি ইনস্টিটিউট-এ নিয়োগ ,পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট জব ,পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট সার্কুলার ,

Leave a Comment